অটোপাস শিক্ষার্থীদের জন্য সুখবর

২০২০ সালে জেএসসি-এইচএসসির বিশেষ মূল্যায়নে উত্তীর্ণ (অটোপাস) শিক্ষার্থীদের মধ্যে সাড়ে ১০ হাজার শিক্ষার্থীকে মেধাবৃত্তি ও সাধারণ বৃত্তি দেবে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি)।

রোববার (০৭ মার্চ) মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের (মাউশি) উপ-পরিচালক মো. নুরুল ইসলাম চৌধুরী স্বাক্ষরিত সব শিক্ষা বোর্ড থেকে বৃত্তি পেতে যোগ্যদের তালিকা পাঠাতে এ সংক্রান্ত একটি নির্দেশনা জারি করা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ২০২০ সালের এইচএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ নিয়মিত শিক্ষার্থীদের মধ্যে সাড়ে ১০ হাজার নামের জন্য দেশের সব শিক্ষা বোর্ড থেকে নিয়মিত শিক্ষার্থীদের তথ্য পাঠাতে বলা হয়েছে।

নির্দেশনায় রাজস্ব খাতভুক্ত মেধাবৃত্তি ও সাধারণ বৃত্তির কোটা বণ্টনের জন্য ২০২০ সালের এইচএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ নিয়মিত শিক্ষার্থীদের তথ্য নমুনা ছক অনুযায়ী পাঠাতে বলা হয়েছে। এ তথ্য আগামী ১১ মার্চের মধ্যে সফট কপি ই-মেইলে এবং হার্ড কপি মাউশি’র মহাপরিচালক বরাবর পাঠাতে বলা হয়েছে।

মাউশির উপ-পরিচালক মো. নুরুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ে মেধাবী শিক্ষার্থীদের রাজস্ব খাত থেকে বৃত্তি দেওয়া হবে। এজন্য আমরা সব শিক্ষা বোর্ডে যোগ্য ও নিয়মিত শিক্ষার্থীদের তালিকা পাঠাতে বলেছি। সেখান থেকে ১০ হাজার ৫০০ জনকে নির্বাচন করা হবে।

তার মধ্যে মেধা কোটায় ১ হাজার ১২৫ জন ও সাধারণ কোটায় ৯ হাজার ৩৭৫ জনকে বৃত্তি দেওয়া হবে। এ সংখ্যা ১০টি শিক্ষা বোর্ডে ভাগ করে দেওয়া হবে। তারা যোগ্যদের মধ্যে এ বৃত্তি বণ্টন করবে।

মাউশি থেকে জানা গেছে, এইচএসসি পর্যায়ে মেধা কোটায় মাসিক ৮২৫ টাকা, তার সঙ্গে এককালীন ১ হাজার ৮০০ টাকা এবং সাধারণ কোটায় মাসিক ৩৭৫ টাকা ও এককালীন ৭৫০ টাকা করে দেওয়া হবে।

শিক্ষার্থীরা উচ্চশিক্ষার জন্য ভর্তি হলে সেই প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে বৃত্তির জন্য আবেদন করতে হবে। তারপর এ অর্থ দেওয়া হবে। বৃত্তি দিতে বিজ্ঞান ও বাণিজ্য বিভাগে জিপিএ-৫ অর্জনকারীদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*