চোখের মেকআপ যেন নষ্ট না হয়, মেনে চলুন ৭ নিয়ম

কালো হরিণচোখের মায়ায় জড়িয়ে কত দিস্তে দিস্তে কাব্য যে লেখা হয়েছে, তার ইয়ত্তা নেই!

কিন্তু স্বাভাবিক কালো হরিণচোখ আর ক’টা মেয়ের থাকে বলুন? তাই স্বাভাবিকভাবেই দরকার পড়ে মেকআপের! তাই তো কাজল, আইলাইনার, আইশ্যাডোর মতো হরেক মেকআপ সরঞ্জামের আয়োজন! আর চোখের মেকআপ আপনি কেমন করছেন, তার ওপর নির্ভর করবে আপনার বাকি মুখের মেকআপ। কারণ যেহেতু কারও মুখের দিকে তাকানোর সময় সবার আগে আমরা চোখের দিকেই দেখি, তাই চোখের মেকআপ আর বাকি মুখের মেকআপ, দুই-ই চড়া হয়ে গেলে দেখতে ভালো লাগে না।

সাজ সম্পূর্ণই হয় না যদি চোখের সাজ ঠিকমতো না হয়। কিন্তু সমস্যাটা সেখানেই। ঠিক করে সেজেগুজে বেরোলেও সবচেয়ে আগে নষ্ট হয় চোখের মেকআপ। তাই জেনে নিন কীভাবে মেকআপ করলে চোখের মেকআপ দীর্ঘস্থায়ী হবে।

চোখের মেকআপ করার সময় মাথায় রাখতে হবে যে বিষয়গুলো:

১) আইশ্যাডো দীর্ঘক্ষণ স্থায়ী করতে প্রথমে চোখের মেকআপ করার সময় আই প্রাইমার দিয়ে একটি বেস তৈরি করুন। এতে আইশ্যাডো ঠিকভাবে বসবে।
২) অনেকেই শিমার আইশ্যাডো লাগাতে ভালোবাসেন। তবে এটা ঠিকভাবে না লাগালে পাতা থেকে খসে পড়তে থাকে। কাজেই এর জন্য একটা আইশ্যাডো ব্রাশে একটু সেটিং স্প্রে লাগিয়ে নিন, তারপর তা দিয়ে শিমার শ্যাডো লাগান। এটি অনেক ক্ষণ স্থায়ী হবে।

৩) আইশ্যাডো লাগানোর সময় প্রথমে একটি ক্রিম শ্যাডো বেস ও তার ওপরে একটি পাউডার শ্যাডো বেস তৈরি করুন। ক্রিম বেসটিতে চটচটে ভাব থাকায়, তা পাউডারটি বেসটি ভালো করে ধরে রাখতে পারে। অন্যদিকে পাউডার বেস থাকার কারণে ক্রিম বেসটি ঘেঁটে যায় না।

৪) আইলাইনার ব্যবহার করতে হলে জেল আইলাইনার ব্যবহার করুন। এগুলি সাধারণত ওয়াটারপ্রুফ হওয়ায় বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়।
৫) চোখের পাতায় অনেক সময়ই তৈলাক্তভাব দেখা যায়। ফলে কাজল পেনসিল বা ক্রিমি আইলাইনার ঘেঁটে গিয়ে চোখের ওপরের অংশে লেগে যেতে পারে। তাই আইলাইনার পরার পর তার সঙ্গে হালকা সরু অ্যাঙ্গেল করা ব্রাশ দিয়ে কালো আইশ্যাডো মিশিয়ে চোখে লাগান।

৬) চোখের পাতা কার্ল করতে কার্লার ব্যবহার করেন তো? খুব ভালো হয় একটা হেয়ার ড্রায়ার দিয়ে যদি কার্লারটা একটু তাতিয়ে নিয়ে কার্ল করেন। এতে চোখের পাতা অনেক ক্ষণ কার্ল থাকবে।
৭) মাসকারা লাগানোর সময় চোখের পাতার সামনের দিকে বেশি মাসকারা লাগাবেন না। এতে চোখের পাতা ভারী দেখাবে। চোখের পাতার গোড়ার দিকে মাসকারা লাগান। এতে চোখের পাতা ঘন ও সুন্দর লাগবে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*